শিরোনাম :
ধামইরহাট বড়থা ডি আই ফাজিল মাদ্রাসার বেহাল অবস্থা নওগাঁয় ডিবি পুলিশের অভিযানে ১০১ কেজি গাঁজাসহ গ্রেফতার ২ ধামইরহাটে অপহরণ মামলার আসামি ইয়াদুল পুলিশের হাতে আটক ধামইরহাটে অর্ধ বার্ষিকী সাফল্য উদযাপন ও যুব সমাবেশ অনুষ্ঠিত কুড়িগ্রামে যুব সংগঠন ব্যবস্থাপনা বিষয়ক কর্মশালা অনুষ্ঠিত নওগাঁর পত্নীতলায় তিন মাদক ব্যবসায়ীকে আটক করেছে র‌্যাব-৫ বগুড়ায় রেলের দূরত্ব ভিত্তিক রেয়াত বাতিলের প্রতিবাদে মানববন্ধন চাঁদপুর জেলায় ফরিদগঞ্জ উপজেলায় খাজে আহমেদ মজুমদার উপজেলা চেয়ারম্যান নির্বাচিত ধামইরহাটে গ্রামের তরুণদের উদ্যোগে মসজিদের ধান কাটা চলছে নওগাঁয় মাদকসহ র‌্যাবের হাতে আটক ১

বাঁশখালীতে মোটর বাইক কেড়ে নিল দরিদ্র গৃহবধুর প্রাণ

রিপোর্টারের নাম
  • আপডেট টাইম : শনিবার, ১৩ ফেব্রুয়ারী, ২০২১
  • ৬৯৯ বার পঠিত

মোঃসরওয়ার আলম চৌধুরী বাঁশখালী প্রতিনিধিঃচট্টগ্রাম জেলার বাঁশখালী উপজেলার অদুরে ধনী পরিবারের এক বয়স্ক মহিলার ওলিমা উপলক্ষ্যে মেঝবান চলছিল। ওই মেঝবানে গিয়েছিলেন ভাল খাবার খাবেন বলে দরিদ্র পরিবারের ভ্যান গাড়ি চালক আব্দুর শুক্কুরের স্ত্রী মুন্নি আক্তার প্রকাশ মনোয়ারা (২২) নামের এক গৃহবধূ। বাঁশখালী-প্রধান সড়কের বাঁশখালী পৌরসভার দক্ষিণ জলদী গ্রামের মনছুরিয়া বাজারের অদূরে রাস্তার পূর্ব পাশে মনোয়ারার বাড়ি। রাস্তার পশ্চিম পাশে চলছিল মেঝবান। গতকাল শুক্রবার (১২ ফেব্রুয়ারী) দুপুর ১২ টা ২০ মিনিটে মুন্নি আক্তার প্রকাশ মনোয়ারা ওইস্থানে মেঝবান খেয়ে রাস্তা পার হয়ে বাড়ি ফিরছিলেন। ওই সময় দ্রুতগামী মোটর সাইকেল চালক মো. সাগর নামের এক কিশোর প্রথমে ওই গৃহবধূকে ধাক্কা দেয়। তিনি রাস্তায় পড়ে গেলে পরে ওই দ্রুতগামী মোটরসাইকেলটি ওই মহিলার মাথার ওপর চাপা দিয়ে অদূরে গিয়ে কিশোরটিও ছিঁটকে পড়ে। ওই সময় কিশোর মো. সাগরেরও মাথা ফেটে যায়। পথচারীরা দ্রুত গৃহবধূ মনোয়ারাকে রক্তাক্ত অবস্থায় বাঁশখালী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যান। ওইখানকার কর্তব্যরত ডাক্তার আশংকাজনক অবস্থায় প্রাথমিক চিকিৎসা শেষে তাকে চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। হাসপাতালে নিয়ে যাবার সময় পথে মধ্যে দুপুর ২টায় মনোয়ারা তাকে বহনকারী গাড়িতেই মারা যান। ওই ঘটনায় আহত কিশোর চালক মো. সাগর মাথায় আঘাত পাওয়া অবস্থায় কোথায় পালিয়ে যান।
বর্তমানে মনোয়ারার লাশ বাঁশখালী হাসপাতালেই রয়েছে। মেঝবান খেয়ে আর তাকে বাড়ি ফিরতে হয়নি। মা’র মৃত্যুর খবরে দুই শিশু সন্তানের কান্নায় পরিবেশ ভারী হয়ে এসেছে। পুলিশ মোটর সাইকেলটি উদ্ধার করেছেন। তবে মোটর সাইকেল আরোহী কিশোর বাঁশখালী পৌরসভার দক্ষিণ জলদী গ্রামের শফিউর রহমানের পুত্র মো. সাগর (১৫) পালিয়ে গেছে। অপরদিকে মনোয়ারা মারা যাবার পর স্থানীয় একটি দালাল গ্রুপ টাকার বিনিময়ে ঘটনা মীমাংসার জন্য তৎপর হয়ে পড়েছে।
নিহত মুন্নি আক্তার প্রকাশ মনোয়ারার বাবা জাকের আহমদ বলেন,‘মনোয়ারার ২টি শিশু সন্তান রয়েছে। তার স্বামী আব্দুর শুক্কুর ঘরজামাই হিসেবে থাকত। আব্দুর শুক্কুরের বাড়ি কক্সবাজারের ঈদগাঁ গ্রামে।’
বাঁশখালী থানার এসআই নাজমুল হক বলেন,‘ ঘটনার পর পর ঘাতক মোটর সাইকেলটি পুলিশ উদ্ধার করেছে। আহত কিশোর মোটর সাইকেল চালক কোথায় পালিয়ে গেছে খোঁজ নেওয়া হচ্ছে। পুলিশ লাশ উদ্ধার করেছে। এ ব্যাপারে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে জানান।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published.

এ জাতীয় আরো খবর..
এই ওয়েবসাইটের লেখা ও ছবি অনুমতি ছাড়া কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Theme Dwonload From ThemesBazar.Com